উদ্বিগ্ন সাধারন মানুষ রামগঞ্জে অনলাইন ক্যাসিনো আসক্তিতে তরুনরা - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 1 May 2021

উদ্বিগ্ন সাধারন মানুষ রামগঞ্জে অনলাইন ক্যাসিনো আসক্তিতে তরুনরা



রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে অনলাইন ক্যাসিনোতে আসক্ত হয়ে পড়েছে যুব ও তরুন সমাজ। বাদ পড়েনি রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাকর্মীরা। এতে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন সাধারন মানুষ। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে এটি নিয়ন্ত্রনে কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। 
সুত্রে জানাযায়, উপজেলার পৌরসভাসহ ১০টি ইউনিয়নে ঢুকে পড়েছে প্যাথলজিক্যাল জুয়া নামের অনলাইন ক্যাসিনো। এ খেলায় একজন আসক্ত হলে আরো ১২জনকে অংশগ্রহন করাতে পারলে তার ১ হাত হয়। এভাবে এখন রামগঞ্জের আনাছে-কানাছে শত শত যুবক তরুনা কয়েক হাজার অনলাইন ক্যাসিনোতে পথব্রষ্ট হয়ে পড়েছেন। বাংলাদেশের অনলাইন ক্যাসিনো সম্রাটের  বাড়ী এই উপজেলায় হওয়ায় এটির বিস্তার এখানে এত দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে যাহা সকলের সম্মিলিত চেষ্টা ছাড়া নিয়ন্ত্রন করা কঠিন। এখানের যুব সমাজ, তরুন সমাজ অন্যান্য নেসা ছেড়ে সর্বক্ষনিক ইন্টারনেটে বাজি ধরে বিশাল অংকের টাকা হারাচ্ছেন।  অনলাইন ক্যাসিনো খেলে রামগঞ্জে গুটি কয়েক অল্প সময়ে আঙ্গুল পুলে কলা গাছ হলেও অধিকাংশ হয়েছেন সর্বশান্ত। অনলাইন ক্যাসিনোতে আসক্তি হলে সাইকোপ্যাথোলজির একটি রূপ উৎসাহিত হয়। যার অভিজ্ঞতা ইন্টারনেটের মাধমে গেমসে অংশ নেওয়া এবং আর্থিক ইউনিট বা অর্থনীতির উপর ভিত্তি করে মুদ্রার সাথে বাজি ধরা। যারা এ খেলায় বার বার হারবে এক সময় তাদের আর বাজি লাগানোর মত টাকা থাকে না। তখন বাধ্য হয়ে তারা করে চুরি, ডাকাতি, চিন্তাইসহ অপরাধজনিত কাজে জড়িয়ে পড়ছে। আবার তাদেরকে সহযোগীতা করতে ক্যাসিনো সম্রাটের অনুসারী কাঞ্চনপুরের সৈয়দ ফায়সাল মাহমুদ, আরিফ মোল্যা, মাসিমপুরের রিয়াজ হোসেনের নেতৃত্বে তৈরী হয়েছে একটি গ্রুফ। সকল বিষয়ে চিন্তা করে এখনই ব্যবস্থা না নিলে রামগঞ্জ উপজেলাব্যাপী আইনশৃংখলার চরম অবনতির আশংকা করছেন উপজেলা সর্বস্তরের জনসাধারন। 
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা জানান, অনলাইন ক্যাসিনো যে জুয়া খেলা এটা আমরা জানতাম না। এখন অনেক টাকা লোকসান করে যতটুকু সামনে এগিয়ে গেছি পিছনে যাওয়া তো কঠিন।
রামগঞ্জ থানান অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, এ ব্যপারে কিছু কাগজপত্র আমার হাতে এসেছে। আমরা পুলিশের আইটি সেকশনে যোগাযোগ করেছি। যতদ্রুত সম্ভব রামগঞ্জে অনলাইন ক্যাসিনোর নামে জুয়া খেলা বন্ধ করা হবে।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আ.ক.ম রুহুল আমিন জানান, আমরা যখন জানতে পারি কামরুজ্জামান শুভ নামের এক অনলাইন ক্যাসিনো সম্রাটের বাড়ী রামগঞ্জে। সে এ খেলা খেলে কোটি কোটি টাকা উপর্জন করেছে এবং এ খেলার বিস্তার করে রামগঞ্জের যুব ও তরুন সমাজকে ধ্বংশ করছে। এমনকি তার অবৈধ ইনকাম জায়েজ করতে ছাত্রদলের রাজনীতি ছেড়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সদস্য হয়েছেন। আমরা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রতিবাদ সভা করে তার বহিস্কার চেয়ে গনসাক্ষর করে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভাপতি বরাবর প্রেরন করেছি। আমরা চাই অনলাইন ক্যাসিনো নামের জুয়া খেলা বন্ধ হোক এবং তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হোক।
লক্ষ্মীপুর-১ রামগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন খান জানান, অনলাইন ক্যাসিনোর মত ধ্বংসাাত্বক জুয়া খেলা বিস্তারের বিষয়টি স্থানীয় আওয়ামীলীগের কয়েকজন আমাকে জানিয়েছিলেন। পরে সামাজিক যোগাযোগ ফেইজবুক ও গনমাধ্যমে জানতে পেরে আমি প্রদক্ষেপ নিয়েছি। অচিরেই দুস্কৃতিকারীরা শাস্তি পাবে এবং অপরাধজনিত ক্যাসিনোসহ সকল কিছু বন্ধ হবে।

No comments:

Post a comment

Post Bottom Ad

Pages