ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে দোকানের সবকিছু পুড়ে গেলেও অক্ষত রয়েছে পবিত্র কুরআন - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad




Monday, 3 February 2020

ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে দোকানের সবকিছু পুড়ে গেলেও অক্ষত রয়েছে পবিত্র কুরআন

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে দোকানের সবকিছু পুড়ে গেলেও অক্ষত রয়েছে পবিত্র কুরআন। 
গত রোববার দিবাগত গভীর রাতে সুন্দরগঞ্জ পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত দাদী আছিরণ প্লাজায় ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে হবে বলে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী জানিয়েছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় দাদী আছিরণ প্লাজার আল ফুয়াদ রেডিমেড বস্ত্রালয় ও সাদিয়া পুষ্পালয়ের মালিক শফিউল ইসলাম দোকান বন্ধ করে বাসায় চলে যান। গভীর রাতে তার দোকানে অগ্নিকান্ডের খবর জানতে পারেন। এসময় স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ফলে ওই প্লাজার অন্যান্য দোকানগুলো রক্ষা পেলেও ফুয়াদ রেডিমেড বস্ত্রালয় ও সাদিয়া পুষ্পালয়ের প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার রেডিমেড পোশাক, ফ্রিজ, ফুল, ফার্ণিচার, বিভিন্ন খেলনা ও গিফট সামগ্রীসহ বিভিন্ন মালামাল ভষ্মিভূত হয়ে যায়। তবে দোকানে থাকা পবিত্র কুরআন শরীফ অক্ষত রয়ে গেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী বিভিন্ন ব্যাংক থেকে নেয়া ঋণ পরিশোধ করা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী শফিউল ইসলাম জানান, ‘আমি ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ৫ লাখ, অগ্রণী ব্যাংক থেকে ৪ লাখ, গণউন্নয়ন কেন্দ্র থেকে এক লাখ টাকা ঋণ নিয়েছি ও জমি বিক্রয়ের টাকাসহ প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকা বিনিয়োগ করেছি দোকানে। সব কিছু পুড়ে যাওয়ায় আমি পথে বসেছি। ঋণ পরিশোধ করতে পারবো কি না জানিনা।’ 
সুন্দরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টিম লিডার এটিএম মোস্তাফিজুর রহমান জানান, অগ্নিকান্ডের খরব শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৩০ মিনিট চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। দোকানে ফ্রিজ ও অগোছালো বৈদ্যুতিক তার থাকায় শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে পবিত্র কুরআন শরীফ অক্ষত রয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages