দুপুরেই বন্ধ হয়ে যায় চৌহালীর ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad




Tuesday, 28 January 2020

দুপুরেই বন্ধ হয়ে যায় চৌহালীর ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান


মোঃ ইমরান হোসেন (আপন) 
চৌহালী ( সিরাজগঞ্জ) 
সরকারের বেধে দেওয়া সময়ের আগেই বিদ্যালয় ছুটি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে সিরাজগঞ্জের চৌহালী  উপজেলার ৩ টি সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে। প্রতিষ্ঠানগুলো হল ৩৬ নং হিজুলিয়া সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়, ৭৩ নং এ্যাওয়াজী কাঠালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খাষদেলদারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।এদিকে উপজেলা  শিক্ষা অফিস বলছে, আমাদের আওতায় থাকা  বিদ্যালয় গুলো সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ক্লাশ চলবে। এর মধ্যে শুধুমাত্র দুপুরে খাওয়ার জন্য আধা ঘণ্টা সময় বিরতী দেওয়ার সরকারী বিধান রয়েছে। শনিবার  ও রবিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,  হিজুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বেলা  ১২ টায় সব শ্রেনীকক্ষে তালা ঝুলছে, আশ পাশের মানুষজনকে জিজ্ঞেস করলে তারা জানায় স্কুল ছুটি হয়ে গেছে যা নিয়মিতভাবে এসময়ে ছুটি হয়ে থাকে।এরপর খাষদেলদারপুর বিদ্যালয় ও এ্যাওয়াজী কাঠালিয়া  বিদ্যালয়ে গিয়ে একই চিত্র দেখা যায়।
এ দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও বেলা  ১ টায় ছুটি দিয়ে দেয় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীদের একাধিক অভিভাবকের সাথে কথা হলে তারা জানায় সকাল ১০ টায় ছেলে মেয়েরা বিদ্যালয়ে গিয়ে আবার ১টা বাজতে না বাজতেই চলে আসে। আসলে এই তিন ঘন্টায় এতগুলো বইয়ের কি ক্লাশ হয় তা ভাবতেই অবাক লাগে। শিক্ষকদের এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তারাও সেভাবে আমলে নেয় না। বাধ্য হয়েই ছেলে মেয়েরো কোচিং নির্ভর হয়ে পড়েছে। বর্তমানে তাদের পড়াশুনা কোচিং নির্ভর বলে জানান অভিভাবকরা।  হিজুলিয়া সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়ের (ভা:) প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল আজিজ  বলেন আমি  ৩ টার সময় স্কুল ছুটি দিই,  আমার স্কুল নিয়ে আপনার মাথা ঘামানোর কিছুই দেখছি না।  এ্যাওয়াজী কাঠালিয়ার (ভা:)  প্রধান শিক্ষক মোঃ রমজান আলী  বলেন,  আমি একা শিক্ষক অফিসে কাজ থাকে তা ছাড়া নৌকা পাড় হয়তে হয় তাই একেক দিন আগেই চলে যাই। খাষদেলদারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বক্তব্য নিতে বারবার ফোন দিলেও তিনি তাতে সাড়া দেন নি।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages