লক্ষ্মীপুরে ৪টি ইউনিয়নে ২৭টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Monday, 19 October 2020

লক্ষ্মীপুরে ৪টি ইউনিয়নে ২৭টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে


লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
 লক্ষ্মীপুর  জেলার সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ ও ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের একটি ওয়ার্ড, রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদ এবং কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের একটি ওয়ার্ডসহ ৪টি ইউনিয়নের ২৭টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। এরমধ্যে দুই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ও অন্য দুই ইউনিয়নের ২টি ওয়ার্ডে মেম্বার পদে নির্বাচন হচ্ছে। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে, বিকেল ৫ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে।

 সদর উপজেলার  চন্দ্রগঞ্জ কফিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও লতিফ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের উপস্থিতি দেখা গেছে। এদিকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপর রয়েছে।

 চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে নুরুল আমিন, বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে তোফায়েল আহমেদ এবং আনারস প্রতীকে স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোহাম্মদ হাসান। চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২৫ হাজার ৬৯৩ এবং ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৩টি।

অন্যদিকে কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে ২জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান কামালের স্ত্রী শাহীনুর বেগম রেখা এবং বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে নজরুল ইসলাম সরকার। কেরোয়া ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২৫ হাজার ৩৪৯ জন এবং ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১২টি।

এছাড়াও সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে একটি কেন্দ্রে ২ হাজার ৫৭৫জন ভোটার রয়েছেন। 

কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে একটি কেন্দ্রে ১ হাজার ৪১৯ জন ভোটার রয়েছেন।

অপরদিকে রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সাবেক চেয়ারম্যান মো. শহীদুল্লাহর স্ত্রী শাহানাজ বেগম বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার কারণে সেখানে ভোটগ্রহণের প্রয়োজন নেই বলে জেলা নির্বাচন কমিশন থেকে জানানো হয়েছে।

 উল্লেখ্য, সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সদরের চন্দ্রগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম বাবুল, রায়পুরের কেরোয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান কামাল, রামগঞ্জের ইছাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহীদ উল্যা মারা যান। এরপরই এই উপনির্বাচনের আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages