আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রামগঞ্জে আ’লীগ-ছাত্রলীগের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ আহত ১০ - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 28 July 2020

আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রামগঞ্জে আ’লীগ-ছাত্রলীগের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ আহত ১০



রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ও গরুর বাজার নিয়ন্ত্রন নিতে লক্ষ্মীপুরের  রামগঞ্জে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার  ২৮ জুলাই দুপুর ১২ টায় এর সময় উপজেলার ১০নং ভাটরা ইউনিয়নের ভাটরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে অস্থায়ী গরুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। 
আহতদের মধ্যে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ওয়াসিম, আ’লীগ সহ সভাপতি হেলাল দেওয়ান, আ’লীগ নেতা জাহাঙ্গীর দেওয়ান রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ী ফিরেছে। 
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোরবানী ঈদ উপলক্ষে ইউনিয়নের গরুর বাজারটি ইজাড়া পায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ওয়াসিম। কিন্তু ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের  সিনিয়র  সহ-সভাপতি হেলাল দেওয়ান গরুর বাজারটি ইজাড়া নিতে চেয়ে ছিলো। কিন্তু ইজাড়া না পেয়ে বাজারের অর্ধেক ভাগ চায় হেলাল দেওয়ান। এতে এমন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। 
ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ওয়াসিম বলেন, আ’লীগ নেতা হেলাল দেওয়ান বাজারের ইজাড়া না পেয়ে আমার কাছে অর্ধেক ভাগ চায়। ভাগ না দেওয়ায় হেলাল দেওয়ান, জাহাঙ্গীর দেওয়ান, হৃদয় দেওয়ান, আনন্দ ও রিমন দেওয়ান দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে তারা হামলা চালায়। 
ইউনিয়ন আ’লীগ সহ-সভাপতি হেলাল দেওয়ান বলেন, গরুর বাজার নিয়ে কিছুই হয়নি। বিষয়টি পারিবারিক।
ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন মিঠু বলেন, আমি দু’পক্ষকেই থামানোর চেষ্টা করেছি কেউই আমার কথা শোনেনি। 
রামগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, বিষয়টি শুনা মাত্রই আমি ঘটনাস্হলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসি।

No comments:

Post a comment

Post Bottom Ad

Pages