নাগরপুরে চাঁদাবাজি মামলায় যুবক গ্রেফতার - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 19 May 2021

নাগরপুরে চাঁদাবাজি মামলায় যুবক গ্রেফতার



মোঃ আব্দুর রাজ্জাক রাজা 
নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে চাঁদাবাজি মামলায় মো. রাসেল ওরফে ভাগ্নে রাসেল (২২) নামের এক যুবক গ্রেফতার হয়েছে। মঙ্গলবার ভোর ছয়টার দিকে নাগরপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার চরকাচপাই গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে। সে ধুবড়িয়া ইউনিয়নের চরকাচপাই গ্রামের আব্দুল লতিফ মোল্লার ছেলে। 

 

মামলা সূত্রে জানা যায়, বাদী মো. ফজলুল হক (৩৫) ডহরপাচুরিয়া মৃত শাজাহান মিয়ার ছেলে । সে ঢাকায় একটি প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কাজ করে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে চলমান লকডাউনের কারনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বাড়ি চলে আসে। করোনার কারনে অনেক কষ্টে করে সংসার চালাচ্ছে। এরি মধ্যে অত্রএলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রসী হিসেবে পরিচিত মো. ছরোয়ার হোসেন (২৭), মো. রাসেল মিয়া ওরফে ভাগ্নে রাসেল, মো. নাছির (২৭), মো. সামিম (২৭), মো. আকাশ ( ২৫), মো আসাদ (২২) ও অসিম সিকদার (৩৭) তারা বাদী ফজলুল হক কে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে গত ১৫/০৫/২১ ইং তারিখ রাত ১১ টার দিকে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। পরের দিন সকালে এক প্রকার হুমকি দিয়ে পুনরায় টাকা চায়। ফজলুল হক টাকা দিতে অপারকতা স্বীকার করলে উল্লেখিত ছরোয়ার বাহিনী টাকার জন্য ১৬.০৫.২১ তারিখ সকালে বাদীর বাড়িতে যায় এবং বাদীকে বিভিন্ন ভাবে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে আসে। বাদী ফজলুল হক নিরুপায় হয়ে নাগরপুর থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করে। নাগরপুর থানার মামলা নং ১৮ ধারা ১৪৩/৪৪৭/৩৮৫।  মামলার সূত্র ধরে নাগরপুর থানার এসআই মো. আরফান খান, এ এস আই রাসেল, এ এস আই আনিস-উজ-জামান  আসামী মো. রাসেল ওরফে ভাগ্নে রাসেল কে মঙ্গলবার ভোর ৬ টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে কোর্টের মাধ্যমে টাঙ্গাইল জেলহাজতে প্রেরণ করে। ছরোয়ার বাহিনীর বিরোদ্ধে নাগরপুর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

 

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনিসুর রহমান বলেন, চাঁদা বাজির  মামলায় রাসেল কে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যহত রয়েছে। সেই সাথে আসামী ছরোয়ার কে ধরিয়ে দিতে পুরস্কার ঘোষনা করা হয়েছে। উল্লেখ্য ছরোয়ার  বর্তমান ধুপড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মতিয়ার রহমান এর ছেলে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages