রামগঞ্জে স্কুল শিক্ষক কতৃক স্ত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 21 June 2020

রামগঞ্জে স্কুল শিক্ষক কতৃক স্ত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ



নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে উপজেলার  শাহজকি উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক তার  স্ত্রী  মোহনা আক্তার উপর 
 পাশবিক নির্যাতন করেন। এই ঘটনায় নির্যাতনের স্বীকার মোহনা আক্তারের মা বাদী হয়ে রামগঞ্জ  থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সুত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ দরবেশপুর জয়নব ডাক্তার বাড়ির মোঃ আলী অহম্মদের ছোট মেয়ে মোসাঃ মোহনা আক্তার (২২) এর সাথে পার্শ্ববর্তী দক্ষিন জগৎপুর জানমাহাদের বাড়ির ফজলুল হকের মেজো ছেলে শাহজকি উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক(৩৬) এর সাথে চার বছর পূর্বে সামাজিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের ৩ মাস পর দাম্পত্য কলহের জের ধরে প্রায় সময় অপবাধ দিয়ে খারাপ মন্তব্য করে আসছেন। বিগত ০৮ মাস পুর্ব থেকে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে পাশবিক নির্যাতন ও সর্বশেষ ২০ জুন শনিবার ভোরবেলা নাস্তা তৈরী করার পর স্বামী ঘুম থেকে উঠতে দেরী হওয়ায় তৈরীকৃত নাস্তা ঠান্ডা হওয়ার অজুহাতে এলোপাতাড়ি হাতে থাকা নাস্তার কাচের প্লেট দিয়ে মারাত্নক রক্তাক্ত করে এবং গলাটিপে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।



নির্যাতনের স্বীকার মোহনা আক্তার জানান, স্বামীর সংসার করতে গিয়ে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতনের স্বীকার হয়ে বেশ কয়েকবার দরবেশপুর ইউনিয়ন পরিষদে মামলা করে কোন বিচার ও মিমাংশা না হওয়া অবস্থায় আমার স্বামী আব্দুর রাজ্জাক গত ১ বছর পুর্বে সড়ক দূর্ঘটনায় মারাত্বক ভাবে আহত হয়,আমি মানবিকতা চিন্তা করে তার সংসারে গিয়ে সেবা সশ্রুশা করে সুস্থ করি। সে সুস্থ হওয়ার পর আবারও আমার উপর দিনের পর দিন নির্যাতন শুরু করে। সর্বশেষ গতকাল শনিবার সকালবেলা নাস্তা তৈরী করার পর স্বামী ঘুম থেকে উঠতে দেরী হওয়ায় তৈরীকৃত নাস্তা ঠান্ড হওয়ার আজুহাতে আমার উপর শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করে আমাকে রক্তাক্ত করে এবং গলা টিপে হত্যার চেষ্টা চালায়। এছাড়াও রান্না ঘরে থাকা রেকের সাথে আমার মাথা সজোরে কয়েকবার আগাত করলে আমি মাথা ঘুরে পড়ে যাই। আমার মা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

তবে স্ত্রীর সম্পূর্ণ অভিযোগ অস্বীকার করে শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক জানান, তার স্ত্রী তার উপর আগে হামলা চালায়। এসময় দস্তাদস্তির মধ্যে উভয়েই আহত হয়। তার হাতের আঙ্গুল কেটে যাওয়াসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

অভিযোগ তদন্ত কর্মকর্তা ও রামগঞ্জ থানার এস আই মহসিন চৌধুরী জানান, থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments:

Post a comment

Post Bottom Ad

Pages