রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের শুরুতেই জালিয়াতির কথা স্বীকার করেছেন শাহেদ - pratidinkhobor24.com

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Friday, 17 July 2020

রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের শুরুতেই জালিয়াতির কথা স্বীকার করেছেন শাহেদ



নিউজ ডেস্ক ঃ 
করোনাভাইরাস নমুনা পরীক্ষায় ভুয়া রিপোর্ট প্রদানের মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসবাদ শুরু করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আদালতের আদেশে রিমান্ডে নিয়ে জিঞ্জাসাবাদের শুরুতেই করোনা পরীক্ষায় জালিয়াতি ও প্রতারণার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) আবদুল বাতেন তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদের আরও অনেক কিছুই আছে। কিন্তু কয়েক সপ্তাহ আগে তিনি করোনায় আক্রান্ত এবং শারীরিকভাবে দুর্বল জানালে। তাকে আজকের জন্য বিশ্রামে পাঠানো হয়েছে। তাকে আরও জিজ্ঞাসা করা হবে। এই জালিয়াতির সঙ্গে আরও কারা জড়িত, তা বের করা হবে।

একই মামলায় তার দুই সহযোগীরও রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মাসুদ পারভেজকে ১০ দিনের রিমান্ডে পাঠানো হয়েছে। সাহেদের আরেক সহযোগী ও রিজেন্ট হাসপাতালের কর্মী তরিকুল ইসলাম ওরফে তারেক শিবলীর পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে আবার সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। তাদেরও আলাদাভাবে জিঞ্জাসাবাদ চলছে।

এর আগে ডিবির পুলিশ পরিদর্শক গাফফারুল আলম প্রতারক সাহেদ ও তার দুই সহযোগী মাসুদ পারভেজ ও তারেক শিবলীকে আদালতে হাজির করে তাদের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। তিনি উত্তরা পশ্চিম থানায় দায়ের হওয়া প্রতারণা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে আদালত রিমান্ডের আদেশ দেন।

বুধবার ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদী তীরবর্তী সীমান্ত এলাকা থেকে সাহেদকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। কোমরপুর সীমান্ত দিয়ে নৌকায় করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। এ সময় তিনি জিন্সের প্যান্ট ও নীল রঙের শার্টের ওপর কালো রঙের বোরকা পরে ছিলেন। কোমরে ছিল গুলিভর্তি অস্ত্র।

গ্রেপ্তারের পর ভোরেই তাকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় আনা হয়। এরপর সাহেদকে নিয়ে উত্তরায় তার একটি গোপন আস্তানায় অভিযান চালিয়ে জাল মুদ্রা উদ্ধার করে র‌্যাব। প্রতারক সাহেদকে বুধবার সন্ধ্যায় মামলার তদন্তকারী সংস্থা ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

No comments:

Post a comment

Post Bottom Ad

Pages